হেফাজতের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা, রাজনীতি নিষিদ্ধ হলো কওমি মাদরাসার ছাত্র-শিক্ষকদের

 

সোনারগাঁও দর্পণ :

অবশেষে নিষিদ্ধ করা হয়েছে দেশের কওমি মাদরাসার ছাত্র ও শিক্ষকদের সব ধরনের রাজনীতি।  রোববার (২৫ এপ্রিল) কওমি মাদরাসার সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী বোর্ড আল-হাইআতুল উলয়া লিল জামিআতিল কওমিয়া বাংলাদেশ’ এর স্থায়ী কমিটির এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। রোববার বিকেলে বোর্ডের অফিস সম্পাদক মু. অছিউর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে, দেশের কওমি অঙ্গনে বিরাজমান অস্থিরতা থেকে ঐতিহ্যবাহী কওমি শিক্ষাব্যবস্থার সুরক্ষা এবং ওলামায়ে কেরামের শান ও মান বজায় রেখে স্বাভাবিক অবস্থায় নানামুখী দিনি কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরির উদ্যোগ নিতেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এছাড়াও আরও বেশ কিছু শর্ত জুড়ে দেয়া হয়েছে বিবৃতিতে। 

এদিকে, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেছে সংগঠনটির আমির জুনায়েদ বাবুনগরী। কওমি মাদ্রাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সবধরণের রাজনীতি বন্ধ হওয়ার সিদ্ধান্তের পর আজ রোববার (২৫ এপ্রিল) রাত ১১টার দিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এক ভিডিও বার্তায় এ ঘোষণা দেন বাবুনগরী।

মাত্র ১ মিনিট ২৩ সেকেন্ডের ওই ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, দেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে  হেফাজত ইসলাম’র কেন্দ্রীয় কমিটির কিছু নেতার পরামর্শক্রমে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে তিনি জানান। তবে, আগামীতে আহবায়ক কমিটির কার্যক্রম আবার শুরু হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

উল্লেখ্য. গত  এপ্রিল হেফাজত ইসলাম’র নেতা মামুনুল হকের সোনারগাঁওয়ের রয়েল রিসোর্ট কাণ্ডের পর দেশের কওমি মাদ্রাসার শিক্ষক ও ছাত্রদের কর্মকাণ্ড নিয়ে দেশ-বিদেশে শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনার ঝড়। গ্রেফতার করা হয় শিশুবক্ত হিসেবে পরিচিত রফিকুল ইসলাম মাদানী, আল্লামা মামুনুল হকসহ বেশ কয়েকজনকে। বিশেষ করে সম্প্রতি মামুনুল হককে গ্রেফতারের পর যে সকল তথ্য তার কাছ বের হয়ে আসছে তা নিয়ে যথেষ্ট উদ্বিঘ্নও ছিল কওমি বোর্ড। 

Post a Comment

[blogger]

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget