সোনারগাঁওয়ে যুবলীগ-বিএনপি’র সংঘর্ষ, আহত ৫; অগ্নিসংযোগ

সোনারগাঁও দর্পণ :  

সোনারগাঁওয়ের জামপুরে বিএনপি ও যুবলীগের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়েছে। এ সময় যুবলীগের লোকজন বিএনপির এক সমর্থকের মাছের খামার পাহারা দেয়ার একটি ঘর আগুনে পুড়ে ফেলে। বালু ভরাটের ব্যবসা নিয়ে আধিপত্য টিকিয়ে রাখতে উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের কলতাপাড়া গ্রামের যুবলীগের আলামিন গ্রুপের সাথে বিএনপি’র গোলজার ওরফে মুরগী গোলজার গ্রুপের এ সংঘর্ষ হয়। 

স্থানীয়রা জানায়, এক সময় বিএনপির গোলজার ও যুবলীগের কর্মী আলামিন একই সাথে ড্রেজারের মাধ্যমে বালু ভরাটের কাজ করত। কিছুদিন যাবত তারা পৃথক ভাবে কাজশুরু করে। এদিকে, সম্প্রতি যুবলীগের আলামিন তিনটি প্রতিষ্ঠানের বেশকিছু বালু ভরাটের কাজ পায়। ওই সকল প্রতিষ্ঠানের বালু ভরাটের কাজ নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই দুই গ্রুপের লোকজনের মধ্যে মৌন দ্বন্দ্ব বিরাজ করছিল। তারই রেশ ধরে রোববার (২৫ এপ্রিল) দুপুরের দিকে দুই গ্রুপের মধ্যে প্রথমে কথা কাটাকাটি পরবর্তী হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে একপর্যায় উভয় গ্রুপ দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে। সংঘর্ষে উভয় গ্রুপের ৪/৫ জন আহত হয়েছে। সংঘর্ষের সময় যুবলীগের লোকজন গোলজারের চাচাতো ভাই বাবুলের মাছের খামার পাহারা দেয়ার একটি ঘরআগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেয় বলে দাবি করেছে বিএনপির গোলজার পক্ষের লোকজন। 

তালতলা পুলিশ ফাড়ির পরিদর্শক আহসান উল্লাহ জানান, দুই গ্রুপের সংঘর্ষের খবর পেয়ে অন্যান্য পুলিশ সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ বিষয়ে উভয় পক্ষ সোনারগাঁও থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছে। 

সোনারগাঁও থানার ওসি হাফিজুর রহমান জানান, দুই গ্রুপের লোকজনই থানায় অভিযোগ করেছে। তদন্ত করে দোষিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


Post a Comment

[blogger]

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget