সাংবাদিক নুরুজ্জামানকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা, আটক এক - সোনারগাঁও দর্পণ

শিরোনাম

Post Top Ad

Sunday, July 17, 2022

সাংবাদিক নুরুজ্জামানকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা, আটক এক


সোনারগাঁও দর্পণ :

দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার বন্দর প্রতিনিধি ও বন্দর প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি নুরুজ্জামান মোল্লাকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা। রবিবার (১৭ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে বন্দর উপজেলার হালুয়াপাড়া এলাকায় হামলার এ ঘটনা ঘটে। মারাত্মক আহত নুরুজ্জামান মোল্লা বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।



আহত নুরুজ্জামান মোল্লার পারিবারিক সূত্র জানায়, স্থানীয় শেখ জামাল স্কুলে এসএসসি পরীক্ষার্থী কোচিং শেষে বাড়ি ফেরার সময় ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে থেকে এক ছাত্রীকে অপহরণের চেষ্টা করে স্থানীয় কামতাল এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী কাইয়ুম, শরীফ, বাবু, শাহজাহান ও জাকিরসহ ৮ থেকে ১০ জনের একটি দল। অপহরণের সময় অপহৃত হতে যাওয়া ওই ছাত্রীর আর্তচিৎকারে স্থানীয়রা জড়ো হলে সন্ত্রাসীরা অপহরণে ব্যর্থ হয়ে পালিয়ে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে অপহরণের চেষ্টার কাজে ব্যবহৃত মাইক্রোবাসসহ চালক শফিককে আটক করে কামতাল পুলিশ। ছাত্রী অপহরণ ও মাইক্রোবাস জব্দের সংবাদ পেয়ে মানবজমিন পত্রিকার বন্দর প্রতিনিধি নুরুজ্জামান মোল্লা ঘটনাস্থলে যান। ঘটনার আদ্যপান্ত জেনে মটরসাইকেলে ফেরার সময় অপহরণের সাথে জড়িত সন্ত্রাসীরা নুরুজ্জামান মোল্লাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে।


তার ডাকচিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে কামতাল তদন্ত কেন্তদ্র পুলিশ গিয়ে সাংবাদিক নুরুজ্জামান মোল্লাকে উদ্ধার করে স্থানীয় বেসরকারি হাসপাতালে পাঠায়। অবস্থা বেগতিক দেখে ওই হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জরুরী ভিত্তিতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। আহত সাংবাদিক নুরুজ্জামান বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন। 

বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ দিপক চন্দ্র সাহা জানান, সাংবাদিককে কুপিয়ে আহত এবং অপহরণের ঘটনায় ইতোমধ্যে পুলিশ মাঠে কাজ করছে। অপহরণের বিষয়ে থানায় অভিযোগ হয়েছে। গাড়ি জব্দ করা হয়েছে এবং চালককে আটক করা হয়েছে। আশাকরি চালক আর অভিযোগের সূত্র ধরে খুব অল্প সময়ের মধ্যে ঘটনার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা সম্ভব হবে।


Post Bottom Ad