প্রার্থী না দেয়াটা সাংগঠনিক দুর্বলতা - কায়সার ; প্রার্থী দিতে সোনারগাঁও জাতীয় পার্টি অক্ষম - কালাম - সোনারগাঁও দর্পণ

শিরোনাম

Post Top Ad

Tuesday, September 14, 2021

প্রার্থী না দেয়াটা সাংগঠনিক দুর্বলতা - কায়সার ; প্রার্থী দিতে সোনারগাঁও জাতীয় পার্টি অক্ষম - কালাম

 সোনারগাঁও দর্পণ : 

সোনারগাঁও উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনে প্রার্থী না দেয়াটাকে সোনারগাঁও জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক দুর্বলতা হিসেবেই দেখছেন নারায়ণগঞ্জ - ৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের ১নং যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল্লাহ আল কায়সার। অপরদিকে, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মাহফুজুর রহমান কালাম মনে করেন উপ-নির্বাচনে প্রার্থী দেয়ার কোন সক্ষমতাই নেই সোনারগাঁও উপজেলা জাতীয় পার্টির। গতকাল সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) আওয়ামী লীগের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও সাবেক এম,সি,এ প্রয়াত সাজেদ আলী মিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আবুল হাসনাত ও আবুল হাসনাতের ভাই উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান প্রয়াত মোশারফ হোসেনের কবর পরিদর্শন ও দোয়া শেষে সোনারগাঁও দর্পণ’র সাথে আলাপকালে তারা এসব মন্তব্য করেন।

এক প্রশ্নের জবাবে আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত সোনারগাঁও দর্পণ’কে বলেন, আমার জানা মতে জাতীয় পার্টি কেন্দ্রীয়ভাবে উপ-নির্বাচনে প্রার্থীতা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে। জাতীয় পার্টি দেশের অন্যতম একটি প্রধান রাজনৈতিক দল ছাড়াও বর্তমানে জাতীয় সংসদে প্রধান বিরোধী দল হিসেবে আছে। সোনারগাঁও জাতীয় পার্টি তারপরও কেন তারা প্রার্থীতা দেয়নি তা আমার বোধগম্য নয়। তবে, প্রার্থী না দেয়াটা সাংগঠনিক দুর্বলতার বহিঃপ্রকাশ বলেই আমি মনে করি।

অপরদিকে উপ নির্বাচনে সোনারগাঁও জাতীয় পার্টির কোন প্রার্থী না থাকাটা কিভাবে দেখছেন ? সোনারগাঁও দর্পণ’র এমন প্রশ্নের জবাবে মাহফুজুর রহমান কালামের সোঁজাসাপটা উত্তর, উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনে সোনারগাঁও জাতীয় পার্টির প্রার্থী দেয়ার কোন সক্ষমতাই নেই। তারা যদি মনে করতেন যে তারা বিগত দিনে সোনারগাঁওয়ের উন্নয়নে ভাল কাজ করেছেন, তাহলে প্রার্থী হওয়ার মতো বা প্রার্থী দেয়ার মতো তাদের নেতা তৈরি হতো বা তারা প্রার্থী দিতে পারতেন। তাদের সে সক্ষমতা হয়নি বলেই এ নির্বাচনে তাদের কোন প্রার্থী নেই।

গত ৭ সেপ্টেম্বর জাতীয় পার্টির সাবেক চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা ও জাতীয় পার্টির অন্যতম নেতা আব্দুস সবুর আসুদ’র সাথে সোনারগাঁও উপ-নির্বাচনে প্রার্থী দেয়া-না দেয়ার বিষয়ে কথা হয় ‘সোনারগাঁও দর্পণ’র। তিনি বলেন, বিভিন্ন উপজেলায় অনুষ্ঠিতব্য উপজেলা উপ-নির্বাচনে প্রার্থীতা দেয়ার বিষয়টি কেন্দ্রীয়ভাবে নির্দেশ দেয়া আছে বলেই আমি জানি। সোনারগাঁওয়ে কেন প্রার্থী দেয়া হয়নি সে বিষয়ে আমি জানি না। 

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ - ৩ আসনের সংসদ সদস্য এবং জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকার মোবাইলে ফোন দিলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।


Post Bottom Ad