আধিপত্য বিস্তার ও ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বসহ কোন অপকর্মের দায়ভার জাতীয় পার্টি নিবেনা - এমপি খোকা

সোনারগাঁও দর্পণ : 

আধিপত্য বিস্তার ও কোন ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বসহ কোন ধরনের অপকর্মের দায়ভার সোনারগাঁও জাতীয় পার্টি নেবেনা বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা বিভাগের অতিরিক্ত মহাসচিব এবং নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁও) আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা। আজ সোনারগাঁও উপজেলা জাতীয় পার্টির দপ্তর সম্পাদক ফজলুল হক’র পাঠানো এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়। 

পাঠানো বিবৃতিতে সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকা বলেন - সোনারগাঁওয়ে গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখতে সুষ্ঠু, সুন্দর-সু-শৃঙ্খল ও নিয়মতান্ত্রিক রাজনৈতিক চর্চা অপরিহার্য বিধায় গত ২০১৪ সালের জাতীয় নির্বাচনের পর থেকে সোনারগাঁওয়ে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ও সৌহার্দ্য পূর্ণ সম্পর্ক ছিল যা এখনো অব্যাহত রয়েছে। ফলে চাহিদা অনুযায়ী সোনারগাঁওয়ের উন্নয়নে সরকার প্রয়োজনীয় বরাদ্দ দেয়ায় তিনি সোনারগাঁওয়ের সকল প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সাথে সুসম্পর্ক রেখে সকলের সাথে সমন্বয় করে নানা উন্নয়নমূলক কাজ করছেন। 

সোনারগাঁওয়ে শান্তি প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে এ অ অঞ্চলের মানুষদের শান্তিতে রাখাই তাঁর (সাংসদ) লক্ষ্য উল্লেখ করে খোকা বিবৃতিতে বলেন, তিনি যখন সম্প্রতি উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির রাজনীতির মাধ্যমে সোনারগাঁওবাসীকে শান্তিতে রাখতে নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন, ঠিক তখনই এক শ্রেণীর ষড়যন্ত্রকারীরা এলাকার আধিপত্ত বিস্তারে ব্যক্তি স্বার্থে সোনারগাঁওয়ের রাজনীতিতে পারষ্পরিক বিদ্বেষ সৃষ্টির ষড়যন্ত্রের অপচেষ্টা করে যাচ্ছে। যার সাথে রাজনৈতিক দলের  কোন সম্পর্ক নেই। 

বিবৃতিতে তিনি বলেন, কোনো ধরণের অপকর্ম ও বিতর্কিত কর্মকান্ডের সাথে যদি জাতীয় পার্টি কিংবা তাঁর (সাংসদ) নাম ভাঙ্গিয়ে কেউ জড়িত হয়, তার জন্য সে ব্যক্তি অপরাধী, দল অপরাধী হতে পারে না। ব্যক্তিগত দল ভারি করতে জাতীয় পার্টি এই সমস্ত কলঙ্কের বোঝা টানতে পারে না। ব্যক্তিগত ভাবে  কেউ কোনো ধরণের অপকর্ম ও বিতর্কিত কর্মকান্ড করলে সেই অপকর্ম ও বিতর্কিত কর্মকান্ডের দ্বায় তিনি (সাংসদ) এবং তাঁর (সাংসদ) দল জাতীয় পার্টি বহন করবো না। তাদের অপকর্মের জন্য জাতীয় পার্টির অর্জন ম্নলা হতে দেওয়া  যেতে পারে না। তিনি দৃঢ়ভাবে বলেন, সোনারগাঁওয়ে তৃণমূল পর্যন্ত তাদের তালিকা তৈরি হচ্ছে। জাতীয় পার্টির অঙ্গীকার - জাতীয় পার্টিতে কোনো স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তি ও বিশৃঙ্খলাকারীদের স্থান হবেনা। 

বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, যদি তাঁর (সাংসদ) কোনো আত্মীয়-স্বজন, দলের নেতাকর্মী ও কিংবা সাংসদের কোনো ব্যক্তিগত স্টাফ কোনো ধরণের বিতর্কিত কর্মকান্ড করে অথবা অপকর্মের সাথে জড়িত হয়, সেই দ্বায়ভার সাংসদ বহন করবে না। অপকর্মকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও তিনি জানান। 

এমনকি যারা অপরাধীদের আশ্রয়-প্রশয় দিবে তাদের বিরুদ্ধেও কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করার হুশিয়ারী দেন খোকা। সোনারগাঁওবাসীকে অনুরোধ করেন, কেউ অপরাধ করলে বা  অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িত হয়, তাহলে আইনের আশ্রয় নিতে পরামর্শ দেন। 


Post a Comment

[blogger]

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget