স্বামীর সামনেই তিন সন্তানের জননীকে নেয়ার চেষ্টা করে লম্পট নজরুল - সোনারগাঁও দর্পণ

শিরোনাম


 

Post Top Ad

Thursday, June 17, 2021

স্বামীর সামনেই তিন সন্তানের জননীকে নেয়ার চেষ্টা করে লম্পট নজরুল

সোনারগাঁও দর্পণ :

স্বামীর সামনে কু-প্রস্তাব দিয়ে তিন সন্তানের এক জননীকে (২৭) টেনে হেঁচড়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে লম্পট নজরুল ইসলাম ওরফে নজু (৩৮) নামে এক বখাটের বিরুদ্ধে। এ সময় ওই গৃহবধূর স্বামী এর প্রতিবাদ করায় তাকেও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত আহত করেছে। বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) দুপুরে সোনারগাঁও উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের চেঙ্গাকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই গৃহবধূ বাদি হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে।

ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূ অভিযোগে উল্লেখ করে, তিন সন্তান নিয়ে দিনমজুর অটোরিকশা চালক স্বামীর সংসার করছেন। গত প্রায় ৪ বছর ধরে উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের চেঙ্গাকান্দি গ্রামের মৃত মোবারক হোসেনের লম্পট ছেলে নজরুল ইসলাম ওরফে নজু তার স্বামীর অনুপস্থিতিতে বিভিন্ন সময়ে তাদের বাড়িতে গিয়ে ওই নারীকে কুপ্রস্তাব দিত। এতে রাজি না হওয়ায় বখাটে নজু তাকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে এবং রাস্তা দিয়ে চলাফেরার সময় অশ্লীল অঙ্গভঙ্গির মাধ্যমে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। 

বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে ওই গৃহবধূ তার স্বামীর ব্যাটারী চালিত অটোরিকশায় উঠে চেঙ্গাকান্দি বারেকের চায়ের দোকানে যাওয়া মাত্রই বখাটে নজরুল ইসলাম ওরফে নজু পথরোধ করে আবারও তাকে কুপ্রস্তাব দেয়। এ সময়ও সে রাজি না হওয়ায় তার স্বামীর সামনে গাড়ি থেকে টেনে হেঁচড়ে নামিয়ে পার্শ্ববর্তী জঙ্গলে নেয়ার চেষ্টা করে। এ সময় স্ত্রী’র ইজ্জত বাঁচাতে তার স্বামী বাঁধা দিলে তার স্বামীকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে মারাত্মকভাবে রক্তাক্ত জখম করে।

এ ব্যাপারে সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ হাফিজুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বখাটেকে আইনের আওতায় আনার সর্বাত্মক চেষ্টা অব্যাহত আছে। 


Post Bottom Ad