সোনারগাঁওয়ে সাবেক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা

 সোনারগাঁও দর্পণ :

ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক এক সদস্য (মেম্বার)’র বিরুদ্ধে মামলা করেছে দেশের বহুজাতিক পণ্য উৎপাদন ও বিপণনকারী প্রতিষ্ঠান মেঘনা গ্রæপ অব ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড (ফ্রেশ ব্রান্ড)। প্রতিষ্ঠানটির সিনিয়র এডমিন খায়রুল ইসলাম বাদী হয়ে উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের সাবেক  মেম্বার আব্দুল হালিম ও তার অপর ৭ সহযোগীর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামী করে আজ (২০ জুন) রোববার সোনারগাঁও থানায় মামলাটি করেন। মামলায় অন্য অভিযুক্তরা হলো - নজরুল ইসলাম, আব্দুর রউফ, রাসেল বাবু, সেলিম, রোমান, উজ্জল ও ইমন।

অভিযোগে বাদি খায়রুল ইসলাম উল্লেখ করেন, অভিযুক্তরা দীর্ঘ দিন ধরেই প্রতিষ্ঠানের পণ্য ও কাচামাল বহনকাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন যানবাহন আসা-যাওয়ার সময় যানবাহন থামিয়ে চালকদের কাছ থেকে টাকা চাইত। না দিলে তাদের মারধর করত। সবশেষ গত ১৮ জুন শুক্রবার মেঘনা শিল্পাঞ্চল এলাকায় প্রতিষ্ঠানটির মাল পরিবহনের সময় একটি ট্রাক আটকে রাখে টাকা দাবি করে। না দিলে চালককে মারধর করে। পরে প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সিনিয়র এডমিন খাইরুল ইসলাম ঘটনাস্থলে গেলে টাকা না দিলে গাড়ি ছাড়বে না বলে জানায় এবং গাড়ি আটকে রাখে। এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানের উর্ধ্বতন কর্তাব্যক্তিদের সাথে কথা বলে টাকা দেয়ার বিষয়টি সমাধান করবে জানালে তারা ট্রাকটি ছেড়ে দেয়। পরে এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ দিলে থানা পুলিশ মামলাটি গ্রহণ করে।

মামলার বিষয়ে পিরোজপুর ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার ও মেঘনা শিল্পাঞ্চল এলাকার শ্রমিক নেতা অভিযুক্ত আব্দুল হালিমের মোবাইল নাম্বারে যোগাযোগ করলে মামলার বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না বলে জানান এবং প্রতিষ্ঠানের কোন গাড়ি কখনো আটকে রাখার সাথেও জড়িত নন বলে দাবি করেন।

সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হাফিজুর রহমান মামলা হওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেছেন।


Post a Comment

[blogger]

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget