সোনারগাঁওয়ে ভয়ঙ্কর নারী সন্ত্রাস, প্রেমিককে পিটিয়ে সর্বস্ব লুট

সোনারগাঁও দর্পণ :

দেশে নারী নির্যাতনের ঘটনা নতুন কিছু নয়। পত্রিকা বা টিভিতে প্রায়ই দেখা যায়, বখাটের হাতে নারী নির্যাতনের ঘটনা। তবে, নারীকে বিশ^াস করে পরকীয়ায় আসক্ত হয়ে নোয়াখালী থেকে সোনারগাঁওয়ে এসে সর্বস্ব খুইয়েছেন পারভেজ ( ২১ ) নামের এক যুবক। তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সোনারগাঁয়ে এনে বন্ধুদের দিয়ে পিটিয়ে জোর করে সাথে থাকা টাকা-পয়সা রেখে দেয়ার লিখিত অভিযোগ করেছে ফাঁদে পরা পারভেজ। 

সোনারগাঁও থানায় পারভেজ লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করে, সোনারগাঁও পৌরসভার নোয়াইল গ্রামের আব্দুল জলিলের মেয়ে জুই (১৮)’র সাথে ফেসবুকে দেড় বছর আগে পরিচয় জয় পারভেজের। তারপর থেকে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এমনকি দু’জনে বিয়েরও সিদ্ধান্ত নেয়। প্রেম চলাকালীণ সময় জুই বিভিন্ন তালবাহানা করে পারভেজের কাছ থেকে প্রচুর টাকাও হাতিয়ে নেয়। সবশেষ গত ৭ জুন রাত আনুমানিক ১০টার দিকে জুই পারভেজের মোবাইল ফোনে বিবাহ করার জন্য চাপ দেয়। অবশেষে ৮ জুন মঙ্গলবার জুইয়ের কথা মতো তাকে বিয়ে করার জন্য ১৫ হাজার ৭০০ টাকা নিয়ে  নোয়াখালী থেকে পারভেজ সোনারগাঁও আসে। 

জুইয়ের দেয়া ঠিকানানুযায়ী পারভেজ উপজেলার মোগরাপাড়াস চৌরাস্তা বাসস্ট্যান্ডের অদূরে খন্দকার মার্কেটের পিছনে যায়। এদিকে, পূর্বপরিকল্পিতভাবে জুই ও তার বন্ধু রাজু, আকাশ, সুজন সেখানে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকে। পারভেজ খন্দকার মার্কেটের পিছনে যাওয়া মাত্র জুই ও তার বন্ধুরা পারভেজকে মারধর করে আহত করে। পরে তাকে ভয়-ভীতি দেখিয়ে তার কাছ থেকে ১৫ হাজার ৭শত টাকা রেখে দেয়। 

এদিকে, এ ঘটনায় জুইয়ের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হচ্ছে এমন খবরে জুইও পারভেজের বিরুদ্ধে অভিযোগ করতে মঙ্গলবার (০৮ জুন) সন্ধ্যায় থানায় গেলে পুলিশ জুইকে তাকে আটক করে। পরে বিষয়টি নিয়ে দুইপক্ষই থানার বাহিরে আপোষ-মিমাংসায় বসে বলে জানাগেছে।


Post a Comment

[blogger]

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget