সোনারগাঁওয়ে গৃহকত্রীকে খুন করে স্বর্ণালঙ্কার ও টাকা লুট

সোনারগাঁও দর্পণ :

সোনারগাঁওয়ে গৃহকর্তাকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে অচেতনের পর গৃহকত্রীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা লুট নিয়েছে ভাড়াটিয়া হারুন অর রশিদ ও তার স্ত্রী সুলতানা। নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের মেঘনা শিল্পাঞ্চল এলাকার ঝাউচর গ্রামে শনিবার রাতের কোন এক সময় ঘটনাটি ঘটেছে। হতভাগা গৃহকত্রীর নাম হোসনে আরা (৫০)। নিহত হোসনে আরা একই গ্রামের আজিমউদ্দিনের স্ত্রী। 

নিহত হোসনে আরা’র ছেলে আল আমিন জানান, রংপুর এলাকার হারুন অর রশিদ ও তার স্ত্রী সুলতানা মেঘনা শিল্পাঞ্চলের একটি কারখানায় চাকুরি করেন। চাকুরির সুবাদে গত পাঁচ মাস আগে তাদের বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করছেন। বসবাস করাবস্থায়  হারুন অর রশিদের সাথে আলামিনদের পরিবারের সুসম্পর্ক গড়ে ওঠে। দুই পরিবারই বিশ^স্ততার সাথে মেলামেশা করছিল। তার মা ঘরের কোথায় টাকা পয়সা ও স্বর্ণালংকার রাখতো সব কিছুই জানতো ভাড়াটিয়ার স্ত্রী সুলতানা। 

আল-আমিন জানায়, শনিবার রাতে ভাড়াটিয়া হারুন অর রশিদ তার বাবা ও মায়ের সাথে গল্প করার সময় তার বাবাকে কৌশলে ঘুমের ঔষধ খাইয়ে অচেতন করে। পরে তার মা’কে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর ঘরে থাকা তিন ভরি স্বর্ণ ও নগদ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। 

সোনারগাঁও থানার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান বলেন, হোসনে আরাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান শুরু হয়েছে। 


Post a Comment

[blogger]

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget