গ্রেফতারের পর ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম মাদানীর মোবাইলে আপত্তিকর ছবি ও পর্নো ভিডিও উদ্ধার - র‌্যাব


সোনারগাঁও দর্পণ :

শিশুবক্তা হিসেবে সুপরিচিত রফিকুল ইসলাম মাদানিকে গ্রেফতারের পর তার মোবাইল ফোন চেক করে একাধিক পর্নো ভিডিও পাওয়া যায়। তাছাড়া ফেসবুক মেসেঞ্জারে বিভিন্নজনকে পাঠানো আপত্তিকর ছবিও পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। 

র‌্যাবের গোয়েন্দা সূত্র জানায়, রফিকুল ইসলামকে আটকের পরই তার মোবাইল ফোন চেক করে দেখে র‌্যাব তার  মোবাইলে একাধিক পর্নো ভিডিও এবং ডাউনলোড করা বেশ কিছু পর্নো ভিডিও পায় যা রফিকুল ইসলাম নিয়মিত দেখত। এছাড়া রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রীসহ দেশের শীর্ষস্থানীয় অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে কুৎসা, কটূক্তিমূলক, বক্তব্য ভিডিও এবং ফেসবুক কনটেন্ট পাওয়া গেছে। 

রাষ্ট্রবিরোধী, উসকানিমূলক এবং ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য, বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির পাশাপাশি রাষ্ট্রের শীর্ষ ব্যক্তিদের নিয়ে কটাক্ষ করার অভিযোগে ‘শিশুবক্তা’ হিসেবে পরিচিত রফিকুল ইসলামকে আটক করে এলিট ফোর্স র‌্যাব। বুধবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে নেত্রকোনা থেকে তাকে আটক করা হয়। 

এছাড়া গ্রেফতার হওয়া রফিকুলের বরাত দিয়ে র‌্যাব জানায়, ২০১৯ সালে তার ভাবির এক চাচাতো বোনকে মুখে মুখে কবুল করে বিয়ে করেন তিনি। গত ৬ এপ্রিল তার পরিবারের সদস্যরা বিয়ের ব্যাপারে কথা বলতে ওই মেয়ের বাসায় যান। রফিকুলের পরিবারের লোকজনের মেয়ে দেখে পছন্দ না হওয়ায় বিয়েতে দ্বিমত দেন পরিবারের সদস্যরা। এরপর ওই মেয়ের মেসেঞ্জারে রফিকুল লেখেন, ‘প্রয়োজনে ১০ বছর হলেও অপেক্ষা করে তোমাকে বিয়ে করবো।’ 


Post a Comment

[blogger]

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget