1. tarunbeghi@gmail.com : admin :
  2. mamun.sp10@gmail.com : Mokkaram Mamun : Mokkaram Mamun
  3. babuibasa@gmail.com : sd :
সোনারগাঁওয়ে আইনজীবির বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার মামলা - সোনারগাঁও দর্পণ
বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০৭:২০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সোনারগাঁওয়ে রড দিয়ে পিটিয়ে শিক্ষকের মাথা ফাঁটিয়ে দিয়েছে ছাত্র সোনারগাঁওয়ে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ বিজয় দিবস উপলক্ষে মুক্তি পেতে পারে ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’ সাংসদ খোকার বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছে আওয়ামী লীগ – সোনারগাঁও জাতীয় পার্টি সোনারগাঁওয়ের প্রবীণ শিক্ষক আব্দুল কাদের (কাদের মৌলভী)’র মৃত্যু এমপি খোকার শাস্তির দাবিতে সোনারগাঁওয়ে আওয়ামী লীগের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচী আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নির্যাতন করলে আর শেখ হাসিনা উন্নয়নে বাধা দিলে দাঁত ভাঙ্গা জবাব দিব- লিয়াকতকে বললেন কায়সার সোনারগাঁওয়ে নামফলক শত্রুতা, সন্দেহের তীর এমপি’র দিকে, প্রতিবাদে আওয়ামী লীগের মিছিল সোনারগাঁওয়ের সাংসদ খোকার বোনের করোনায় মৃত্যু সোনারগাঁওয়ের সনমান্দীতে জাতীয় পার্টির ওয়ার্ড কমিটি গঠন

ছবি ঘর

সোনারগাঁওয়ে আইনজীবির বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার মামলা

  • সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ২১ অক্টোবর, ২০২০

সোনারগাঁও দর্পণ :

সোনারগাঁওয়ে শফুরউদ্দিন নামের এক আইনজিবীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ করেছেন এক গৃহবধূ। অভিযোগে ওই গৃহবধূ দাবি করেন, গত তিন বছর ধরে এ আইনজীবি ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে অবশেষে হত্যার হুমকি দিয়েছে। এ ঘটনায় বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন বিশেষ ট্রাইবুনাল আদালতে তিনি এ মামলা (মামলা নং ২৮৮) করেন। মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কে তদন্ত করে আগামী ২৫ অক্টোবর তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।
বাদী মামলায় উল্লেখ করেন, সোনারগাঁও পৌরসভার কৃষ্ণপুরা গ্রামের এক গৃহবধুর স্বামী কাজে বাড়ির বাইরে থাকার সুবাদে একই গ্রামের পাশের বাড়ির সামসুদ্দিনের ছেলে শফুরউদ্দিন ওই গৃহবধূকে গত তিন বছর ধরে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। কিন্তুওই গৃহবধু রাজি না হওয়ার বিয়ের প্রস্তাব দিয়েও ব্যর্থ হয়ে গত ১১ সেপ্টেম্বর বিকেলে গৃহবধূকে তার ঘরে একা পেয়ে শুয়ে থাকাবস্থায় দরজার খিল ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে গৃহবধূ’র মুখ ও দুই হাত গামছা দিয়ে বেঁধে বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। ধস্তাধস্তির এক পর্যায় মুখ থেকে গামছা খুলে গেলে গৃহবধূ ডাক চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে গেলে পাশ্ববর্তী ৪ জন মহিলাকে কিল ঘুষি মেরে চলে যায়। চলে যাওয়ার সময় এ বিষয়ে মুখ না খোলার জন্য হুমকি দিয়ে যায়। পরে আত্মীয় স্বজন ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের অবগত করে সোনারগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেয়। ঘটনার পরদিন সোনারগাঁও থানায় মামলা করতে গেলে থানার ওসি রফিকুল ইসলাম মামলা নেয়নি। পরবর্তীতে ওই গৃহবধূ নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন বিশেষ ট্রাইবুনাল আদালতে এ মামলা করেন। এমনকি গত ১৮ অক্টোবর শনিবার বিকেলে সোনারগাওঁ থানায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মতবিনিময় সভায় পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহেদুল আলমের কাছে ওই গৃহবধু ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ করে বিচার দাবী করেন।
এদিকে, অভিযুক্ত অ্যাডভোকেট শফুরউদ্দিন জানান, তার বিরুদ্ধে ওই মহিলা মিথ্যা রটনা ছড়াচ্ছিন। এমন ঘটনার সাথে তিনি জড়িত নন।
সোনারগাঁও থানার ওসি রফিকুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে আদালতে মামলা হয়েছে। মামলাটি পিবিআই তদন্ত করছেন।

আপনি সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Customized By BreakingNews