1. tarunbeghi@gmail.com : admin :
  2. mamun.sp10@gmail.com : Mokkaram Mamun : Mokkaram Mamun
  3. babuibasa@gmail.com : sd :
মুখোশ পরেও ধরা, সোনারগাঁওয়ে মাদক ব্যবসায়ী ও চোরকে পিটুনি এলাকাবাসীর, পুলিশে সোপর্দ - সোনারগাঁও দর্পণ
বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:১৬ অপরাহ্ন

ছবি ঘর

মুখোশ পরেও ধরা, সোনারগাঁওয়ে মাদক ব্যবসায়ী ও চোরকে পিটুনি এলাকাবাসীর, পুলিশে সোপর্দ

  • সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ৩০ ডিসেম্বর, ২০২০

সোনারগাঁও দর্পণ :
সোনারগাঁওয়ে সানি নামে এক মাদক ব্যবসায়ী ও চোরকে ধরে উত্তম-মধ্যম দিয়ে গাঁজাসহ পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে স্থানীয় এলাকাবাসী। বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার শম্ভুপুরা ইউনিয়নের কাজিরগাঁও গ্রামে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের কাছে তুলে দেয়।
স্থানীয়রা জানায়, বুধবার সকালে প্রতিদিনের মতো শম্ভুপুরা ইউনিয়নের কাজিরগাঁও গ্রামের দুখাই প্রধানের ছেলে ফরিদ প্রধানকে তার কাজের জন্য স্ত্রী গেইটের বাইরে বিদায় দিয়ে বাড়িতে প্রবেশে করে। ফরিদ প্রধান গাড়িতে উঠে চোখের আড়াল হওয়ার সাথে সাথে তার স্ত্রী’র গলা থেকে স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায় মুখোশ পড়া দুই যুবক। মুখোশ পড়া থাকলেও একই এলাকার হওয়ায় তাদের মধ্যে সানি নামে একজনকে চিনে ফেলে ফরিদ প্রধানের স্ত্রী। বিষয়টি টেলিফোনে তার স্বামী ফরিদকে জানায়। ফরিদ প্রধান সোনারগাঁও থানায় ঘটনাটি উল্লেখ করে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। পরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে তদন্তে গেলে স্থানীয়রা সানি সম্বন্ধে বিভিন্ন তথ্য পুলিশকে জানায়। তবে, তদন্তের সময় সানিকে এলাকায় পাওয়া যায়নি।

পরে সন্ধ্যার দিকে ফরিদ প্রধান অফিস থেকে বাড়ি গিয়ে স্থানীয় শম্ভুপুরা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড সদস্য (মেম্বার)সাবুদ আলীসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে নিয়ে সানির বাড়ি যাওয়ার সময় পথিমধ্যে তাকে (সানি) পায় এলাকাবাসী।

সড়কে দাড় করিয়ে সকালের ঘটনার কথা তুলতেই সে স্থানীয়দের হুমকী দিতে থাকে। এক পর্যায় ফরিদ প্রধান ও মেম্বারের সাথে থাকা এলাকার যুবকরা ধরে তার দেহ তল্লাশি করে ৭/৮ টি গাঁজার পুড়িয়া ও কিছু টাকা পায়। সানি তাদের জানায়, এ সকল গাঁজা সে মোগরাপাড়া এলাকা থেকে বিক্রির জন্য নিয়ে গেছে এবং সে দীর্ঘদিন ধরেই এলাকায় বিক্রি করছে। এ সময় তার কাছ থেকে গাঁজা নেয়ার জন্য একাধিক মাদক সেবী/ব্যবসায়ী ফোনও দেয় বলে স্থানীয়রা জানায়।

এদিকে, খবরপেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রথম দিকে সানিকে আইনের আওতায় নিবেনা বলে অস্বীকার করলে স্থানীয়রা পুলিশের সাথে বাকবিতÐা করে এবং একজন মাদক ব্যবসায়ী ও চোরকে হাতে নাতে ধরে দিলেও কেন তারা তাকে আইনের আওতায় নেয়া হবেনা জানতে চাইলে এক পর্যায় পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায় সোনারগাঁও থানার এএসআই আনিস।

বর্তমানে মাদক ব্যবসায়ী ও চোর সানি সোনারগাঁও থানা পুলিশের কাছে আটক অবস্থায় আছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (রাত সোয়া একটা) তার বিরুদ্ধে কোন মামলা হয়েছে কি-না তা জানা সম্ভব হয়নি।

আপনি সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Customized By BreakingNews
error: Content is protected !!