1. tarunbeghi@gmail.com : admin :
  2. mamun.sp10@gmail.com : Mokkaram Mamun : Mokkaram Mamun
  3. babuibasa@gmail.com : sd :
জনসমাগম করে বর্ষবরণের উৎসব বন্ধ সম্পূর্ণ বন্ধ - প্রধানমন্ত্রী - সোনারগাঁও দর্পণ
বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০৭:০৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সোনারগাঁওয়ে আইনজীবির বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার মামলা ফেসবুক স্ট্যাটাসই যেন দায়িত্ব শেষ না হয় পৌরসভা নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে পুলিশ বদ্ধ পরিকর – পুলিশ সুপার শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের সুনাম যেন নষ্ট না হয় – এরফান হোসেন দ্বীপ চাঁদাবাজদের বিষয়ে সোনারগাঁওবাসীকে সতর্ক করে ইউএনও’র ফেসবুক স্ট্যাটাস সোনারগাঁওয়ে নগদ ৪ লাখ টাকাসহ লোড ব্যবসায়ীর প্রায় ১০ লাখ টাকার মালামাল ছিনতাই সোনারগাঁওয়ে শিশু ধর্ষণ, গ্রেফতার – ১ সোনারগাঁওয়ে শিশু খাদ্যের প্রতিষ্ঠানকে তিন লাখ টাকা জরিমানা, ৫০ লাখ টাকার মালামাল ধ্বংস সোনারগাঁওয়ের শ্রমিকের কষ্টার্জিত টাকা নড়াইল থেকে উদ্ধার মদনপুরে ছাত্র সমাজের উদ্যোগে ধর্ষণ বিরোধী মানববন্ধন

ছবি ঘর

জনসমাগম করে বর্ষবরণের উৎসব বন্ধ সম্পূর্ণ বন্ধ – প্রধানমন্ত্রী

  • সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ, ২০২০

 সোনারগাঁও দর্পন

বাংলা ক্যালেন্ডার অনুযায়ী বাংলা নতুন বছর ‘বঙ্গাব্দ ১৪২৬’ আগামী ১৪ এপ্রিল। করা হয় বর্ষবরণ। বাঙালির সবচেয়ে বড় অসাম্প্রদায়িক এ উৎসব এবার জনসামাগমের মাধ্যমে পালন না করে তা বদ্ধ করার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (৩১মার্চ) মঙ্গলবার সকাল ১০টায় সরকারি বাসভবন গণভবন  থেকে জেলা প্রশাসকদের সাথে এক ভিডিও কনফারেন্স আলোচনার সময় তিনি এ ঘোষণা দেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, নববর্ষের অনুষ্ঠান আমি মনে করি ডিজিটাল পদ্ধতিতেই আপনারা করতে পারেন। সেখানে সবাই যথাযথ আকারে করুন। কিন্তু বিশাল জনসমাগম করে এই অনুষ্ঠান সারা বাংলাদেশে সম্পূর্ণ বন্ধ রাখতে হবে। এটা আমার বিশেষ অনুরোধ।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, নববর্ষের অনুষ্ঠান বন্ধ রাখতে বলার বিষয়টি আমার জন্য কষ্টের বিষয়। কষ্ট বেশি লাগছে আমার। এটা ঠিক যে অনেক বাধা-বিঘœ অতিক্রম করে নববর্ষের অনুষ্ঠান আমরাই শুরু করেছিলাম । কিন্তু আজকে সেটাও আমাকে বন্ধ রাখতে হচ্ছে। মানুষের কল্যাণের দিকে তাকিয়েই কিন্তু এটা আমরা বন্ধ রাখছি। কাজেই নববর্ষের অনুষ্ঠান আপনারা করবেন না। এটা আপনারা বন্ধ রাখবেন।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসকের বক্তব্যের পর শেখ হাসিনা বলেন, কক্সবাজারে যেন পর্যটক না যেতে পারে, সে বিষয়ে তৎপর থাকতে হবে। আর রোহিঙ্গা শিবির নিয়ে আমাদের বড় চিন্তা। সেখানে যাতে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে না পারে, সে ব্যাপারে সচেষ্ট থাকতে হবে।

 

 

আপনি সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Customized By BreakingNews