সোনারগাঁওয়ে কে পাচ্ছেন নৌকার মনোনয়ন ! - সোনারগাঁও দর্পণ

শিরোনাম

Post Top Ad

Wednesday, April 27, 2022

সোনারগাঁওয়ে কে পাচ্ছেন নৌকার মনোনয়ন !


সোনারগাঁও দর্পণ : 

গত সোমবার (২৫ এপ্রিল) সোনারগাঁও উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদসহ দেশের ১৩৫ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি), ৬টি পৌরসভা ও ১টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন গ্রহণের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।  ঘোষণানুযায়ী আগামী ১৫ জুন সোনারগাঁওয়ের মোগরাপাড়া ইউনিয় পরিষদ নির্বাচন হতে যাচ্ছে।

এদিকে, নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই শুধু মোগরাপাড়া নয়, উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন-এমনকি পার্শ্ববর্তী উপজেলাগুলোতেও শুরু হয়েছে কে জল্পনা-কল্পনা। পাচ্ছেন অত্র ইউনিয়নে সরকার দলীয় মনোনয়ন। জনগণের ভোটে বার বার নির্বাচিত ক্লিনইমেজের বর্তমান চেয়ারম্যান আরিফ মাসুদ বাবু ! না-কি জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আলোচিত-সমালোচিত ব্যবসায়ী শাহ মো. সোহাগ রনি !

সোনারগাঁওয়ের বিভিন্ন ইউনিয়ন ও পার্শ্ববর্তী উপজেলায় এ নিয়ে কথা চলাচালি হলেও মুল আলোচনা হচ্ছে মোগরাপাড়ার হাট-মাঠ-ঘাটে। বিশেষ করে বর্তমানে সরগরম মোগরাপাড়া ইউনিয়নের চায়ের দোকান ও হোটেল রেস্তোরাগুলো। সবার মুখে একই কথা - কে পাবেন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন  ? কে করবেন নৌকা প্রতিক নিয়ে নির্বাচন ?   

এমন আলোচনার ফাঁকে ওঠে আসছে আরিফ মাসুদ বাবু ও সোহাগ রনি’র বিভিন্ন ভালো-মন্দ সব ধরনের কথা, তথ্য-উপাত্ত। অনেকেই জানছেন নতুন নতুন তথ্য। কেউ শুনছেন, কেউ শোনাচ্ছেন। কেউ জবাব দিচ্ছেন, কেউবা আবার পাল্টা জবাবে গরম হচ্ছেন। বিবাদের আশঙ্কায় কেউ আবার তর্ক=বির্তকে পশমিত করছেন সুকৌশলে। চলছে কথার যুদ্ধ। 

তাদের কারো মতে, রাজনীতিসহ বিভিন্ন কারণে মোগরাপাড়া ইউনিয়ন উপজেলার অন্যতম প্রভাবশালী এলাকা। এখানকার  চেয়ারম্যান হিসেবে আরিফ মাসুদ বাবুই যোগ্য। হিংসা, অহংকার ও উচ্চাভিলাশি মুক্ত স্বচ্ছ ক্লিন ইমেজ রয়েছে তার। এছাড়া, বিচার সালিশেও রয়েছে ব্যাপক গ্রহণযোগ্যতা। অন্যায়ের কাছে মাথা নত করা বা কাউকে জ্বি হুজুর, জ্বি হুজুর স্বভাব তার মধ্যে নেই।

করো মতে আবার ক্ষমতার পরিবর্তন হওয়া দরকার। কিন্তু আরিফ মাসুদ বাবা’র প্রতিদ্ব›িদ্ব হিসেবে সোহাগ রনি এখনও পরিপক্ক হয়ে ওঠেনি নির্বাচনের। 

কেউবা আবার বলছেন, কেউ যোগ্যতা নিয়ে জন্ম নেয়না। ক্ষমতা পেলে অনেক অযোগ্যেরই যোগ্যতা হয়ে যায়।  এমন অনেক যুক্তি-তর্ক চলছে ইউনিয়নের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ নানান স্থানে।

যদিও নৌকা প্রতিকের দলীয় মনোনয়ন পেতে তারা দু’জনই আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের দ্বারস্থ হচ্ছেন নিজের মতো করে। কেন্দ্রে দৌড়-ঝাঁপে কারও থেকে কেউ পিছিয়ে নন। অবশেষে কে হবেন নৌকা প্রতিকের প্রার্থী। সেটি দেখতে অপেক্ষা করতে হবে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার আগে পর্যন্ত।

এদিকে দলীয় মনোনয়নের ব্যাপারে বর্তমান চেয়ারম্যান আরিফ মাসুদ বাবু সোনারগাঁও দর্পণ’কে বলেন, আমি আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান হলেও কখনও অন্যকোন রাজনৈতিক দলের কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে ভিন্ন চোখে দেখিনি বা তেমন কাজও করিনি। আমি একদিকে আওয়ামী লীগের একজন নগণ্য কর্মী হিসেবে সকল দলীয় কার্যক্রম করেছি অপরদিকে, স্থানীয় সরকারের একজন নির্বাচিত প্রতিনিধি হিসেবে সকলের মধ্যে সরকারের সকল সুযোগ-সুবিধা বুঝিয়ে দিয়েছি। আমি এমন কোন কাজ করিনি যে দল আমাকে মনোনয়ন দিবেনা। আল্লাহ্ রহমতে দলের কাছে যেমন আমার ক্লিন ইমেজ আছে, আমি মনে করি আমার মোগরাপাড়া ইউনিয়নবাসীর কাছেও ক্লিন ইমেজ রয়েছে। আমার কর্মকাÐ এবং পারিবারিক ঐতিহ্য বিবেচনায় আমি দলীয় মনোনয়নের বিষয়ে ইনশাল্লাহ শতভাগ আশাবাদি।   

মোগরাপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহ্ মো. সোহাগ রনি সোনারগাঁও দর্পণ’কে বলেন, আওয়ামী দলীয় মনোনয়নের বিষয়ে শতভাগ আশাবাদী। কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ‘আমি ছোট কাল থেকেই আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত। কেন্দ্র যখন যে কর্মসূচী নিয়েছে আমি রাজপথে থেকে সেই কর্মসূচীতে অংশ গ্রহণ করেছি। দলীয় নির্দেশ মোতাবেক করোনা মহামারিতেও আমি আমার সাধ্যমতো অসহায়-দুস্থ্যদের পাশে দাড়িয়েছি। এছাড়াও সামাজিকভাবে ইউনিয়নের বিভিন্ন স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসা ও রাস্তাঘাট নির্মাণে সাহায্য-সহযোগিতা করছি। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তরুনদেরকে প্রাধান্য দেন। আমিও একজন তরুন হিসেবে দলীয় বিভিন্ন কার্যক্রম যেভাবে করেছি এবং করছি আমার বিশ্বাস দল আমাকে মনোনয়ন দিবে।


Post Bottom Ad