সোনারগাঁওয়ে শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসী রাসেল গ্রেফতার - সোনারগাঁও দর্পণ

শিরোনাম


 

Post Top Ad

Thursday, July 15, 2021

সোনারগাঁওয়ে শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসী রাসেল গ্রেফতার

সোনারগাঁও দর্পণ :

সোনারগাঁওয়ে শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসী, একাধিক মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী এবং ২০১৯ সালের ১১ সেপ্টেম্বর র‌্যাব'র হাতে ক্রসফায়ারে নিহত শীর্ষ সন্ত্রাসী গিট্টু হৃদয়ের বোনের স্বামী রাসেল মাহমুদ ওরফে মাদক রাসেলকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলার  পিরোজপুর ইউনিয়নের ছোট কোরবানপুরে (মাদলাপাড়া) তার নিজ বাড়ি থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত রাসেল একই গ্রামের মৃত সাফাতউল্লাহ’র ছেলে।

স্থানীয় সূত্র জানায়,  রাসেল সোনারগাঁও উপজেলার মাদক গুরু। এরআগে, তার স্ত্রী’র ভাই ও এক সময় সোনারগাঁও থানার তালিকাভূক্ত অপর শীর্ষ সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী হৃদয় ওরফে গিট্টু হৃদয় ২০১৯ সালের ১১ সেপ্টেম্বর বন্দুক যুদ্ধে নিহত হওয়ার আগ পর্যন্ত হৃদয়ের সেকেন্ড ইন কমান্ড হিসেবে কাজ করতো রাসেল। এছাড়া, শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসী  রাসেল একযুগেরও বেশি সময় ধরে একটি শক্তিশালী সিন্ডিকেট করে পিরোজপুর ইউনিয়নের বড় কোরবানপুর, ছোট কোরবানপুর (মাদলাপাড়া), শান্তিনগর, পাঁচআনী, সফিকুলের বাজার, মঙ্গলেরগাঁও, চরগোয়ালদি ও বটতলাসহ বিভিন্ন গ্রামে তার গঠিত ও নিয়ন্ত্রিত কিশোর গ্যাং দিয়ে প্রকাশ্যে মদ, বিয়ার, ফেনসিডিল ও ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদক ব্যবসা করছে। এমনকি তার নামের ওপর তারই বাহিনীর লোকজন এলাকায় প্রকাশ্যে আগ্নেয়াস্ত্র ও দেশীয় ধারালো অস্ত্রশস্ত্র সাথে নিয়ে মহড়া দিয়ে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করে মানুষের জমি-জমা জবর দখল করে। বাধা দিলে প্রতিবাদকারীর ভিটিতে ঘুঘু চড়ায় রাসেল ও তার বাহিনীর লোকজন।

এলাকাবাসী জানায়, রাসেল অনেক চালাক প্রকৃতির। সে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাত থেকে পালিয়ে থাকতে এক স্থানে বেশি দিন থাকেনা। এমনকি নদী পথে তার মাদক ব্যবসা চালায় নির্ভিগ্নে। তার ও তার বাহিনীর সন্ত্রাসী কার্যকলাপে এলাকার নিরীহ মানুষই নয় মুখ খুলতে ভয় পায় অনেক প্রভাবশালীও। এলাকাবাসী আরও জানায়, হৃদয় নদী পথে আর তার ভাই কমল হক স্থল পথে মাদক বব্যসার অভয়ারণ্য করে ব্যবসা করছে। অবশেষে বৃহস্পতিবার জেলা ডিবি পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয় রাসেল। তার বিরুদ্ধে ৪/৫টি  মামলার গ্রেফতারী পরওয়ানা রয়েছে বলে জানাগেছে।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা ডিবি পুলিশের অফিসার ইনচার্জ এর সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। 


Post Bottom Ad